February 21, 2024

সুবিধাবঞ্চিত সনাতনী শিশুদের মাঝে নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের বস্ত্র বিতরণ

বারসিক’র সার্বিক সহযোগিতায় ও নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের উদ্দ্যােগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২৩জন সুবিধাবঞ্চিত সনাতন ধর্মাবলম্বী শিশুদের মাঝে পূজার নতুন জামা বিতরণ করা হয়েছে।

বুধবার (১৮ অক্টোবর) বিকাল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয় ডিন’স কমপ্লেক্সের কনফারেন্স রুমে ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মাহিন হোসেন মিটুলের শুভেচ্ছা বক্তব্যের মাধ্যমে এ বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানের সূচনা হয়।

এসময়ে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বক্তব্যে নর্থ বেঙ্গল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. বিধান চন্দ্র বলেন, আমাদের তরুণ সমাজ এখনো শেষ হয়ে যায়নি। এখনো কিছু তরুণ রয়েছে যারা নিঃস্বার্থে মানবসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে পারে। নবজাগরণ ফাউন্ডেশন একটি জ্বলন্ত উদাহরণ। মানুষের জন্য কাজ করার যে উদ্দীপনা, চেষ্টা এবং নিরলস পরিশ্রম আমি তাদের মধ্যে লক্ষ্য করলাম আমি তার প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান প্রদর্শন করছি। আমি তোমাদের সাথে ভবিষ্যতেও থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করছি। আর তোমরা হতাশ হবে না। মহৎ কাজে মানুষ কম ই পাবা। রবীন্দ্রনাথের গানের কথা মাথায় রেখে এগিয়ে যাও এবং এই নীতি গ্রহন কর যে, যদি তোমার ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা চলবে।

এসময়ে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে সভাপতি অধ্যাপক ড. ফারহাত তাসনিম বলেন,নবজাগরণ ফাউন্ডেশন সর্বদা সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে থাকে। প্রতি বছর বিভিন্ন উৎসবের সময় যারা নতুন পোশাক বা অন্যান্য সামগ্রী ক্রয় করতে পারেনা। তাদেরকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে সামনে এগিয়ে আসে নবজাগরণ। তাদের কার্যক্রমগুলো যখন জানতে পেরেছি তারপর থেকেই তাদের ডাকে সাড়া দেওয়ার চেষ্টা করি। যতটুকু পারি পাশে থাকি। সামনেও পাশে থাকতে চাই।

অনুষ্ঠানের সভাপতি মো. অলিউল ইসলাম বলেন, পূজার নতুন জামা বিতরণ নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের একটি বার্ষিক উৎসব। এ মহৎ কাজের আহ্বায়ক হতে পেরে আমি অত্যন্ত গর্বিত। আজ আমরা সহানুভূতি এবং সৌহার্দ্যের মেলবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছি একটু ভালো রাখার প্রচেষ্টা চালাতে। একজন সচেতন নাগরিক হিসাবে আমাদের প্রত্যেকেরই উচিৎ বিশেষ করে উৎসবগুলোর সময়ে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে এসে দাড়ানো। ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে সবাইকে বদ্ধপরিকর হতে হবে।

উক্ত অনুষ্ঠানে জাহিদ হাসান এবং দিলরুবা আক্তার দিতী’র যৌথ সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সুলতান মাহমুদ রানা, ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ড. রুকসানা বেগম, বারসিক এর আঞ্চলিক সমন্বয়ক শহিদুল ইসলাম এবং নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের সদস্যবৃন্দ।

About The Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *