February 24, 2024

মান্দায় বাড়ছে পাঙ্গাস মাছ ব্যবসায়ী

দিন দিন যুবকরা ঝুকছে পাঙ্গাস মাছ চাষ ব্যবসায়। সল্প সময়ে মাছ বিক্রির উপযোগী হয় বলে আগ্রাহ বাড়ছে যুবকদের। এতে করে সাবলম্বী হচ্ছে অনেক পরিবার।

বেকারত্ব কমিয়ে আনতে মান্দা উপজেলার কলীগ্রাম গ্রামের অনেক যুবক বেশি মাছ ব্যবসায় আগ্রহী হয়েছেন।এতে করে বেকারত্ব কমছে, সাবলম্বী হচ্ছেন অনেক মাছ চাষী। মাছ ব্যবসা কে কেন্দ্র করে অনেক ছোট বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে দেলুয়াবাড়ি বাজারে।

মাছ ব্যবসায়ী স্বাধীন ইসলামের সাথে কথা বলে তিনি ফ্ল্যাশ নিউজকে জানান, পাঙ্গাস মাছ ব্যবসায় সময় ও কম লাগে, লাভ ভালো হয়। মাছ ছাড়ার ৩ মাস পর মাছ বিক্রি সম্ভব।২০০ গ্রাম মাছের পোনা পুকুরে ছাড়লে ৩ মাস পর ২ থেকে আড়ায় কেজি পর্যন্ত ওজন হয়। এতে করে তিন গুন লাভ করা সম্ভব।

তিনি আরো বলেন পাঙ্গাস মাছ বাড়ির আসে পাশে ছোট ডোবা বা ছোট পুকুরে এই মাছ চাষ করা সম্ভব। খাবার হিসেবে চালের খুদ, ভাসমান ফিড, ব্যান্ড, এই সব আমিষ জাতীয় খাবার দিয়ে মাছ চাষ করে অসছি বিগত ৫ বছর থেকে।

পাঙ্গাশ মাছের দিন দিন চাহিদা বাড়ছে। উর্ধগতি এই বাজারে মধবিত্ত মানুষের আমিষের চাহিদা মিটাচ্ছে এই পাঙ্গাশ মাছ। স্থানীয় বাজারে প্রতি কেজি পাঙ্গাশ মাছ ১৬০ থেকে ১৯০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

রির্পোটার, ফ্ল্যাশ নিউজ
তাহসিব আলম শাহ

About The Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *